ঢাকা ১০:২৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
৭৪ বছর বয়সী জন ইভান্স মাথায় বিভিন্ন ভারী বস্তুর ভারসম্য রেখে বিশ্বরেকর্ড করেছেন।

৭৪ বছরে ৯৮টি বিশ্বরেকর্ড বৃদ্ধের

  • ফিচার ডেস্ক
  • আপডেট সময় ০২:৫৩:০৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ এপ্রিল ২০২২
  • ৪০৯ বার পড়া হয়েছে

সূত্র: ইনসাইড এডিশন/ গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড

বিশ্বরেকর্ড করতে মানুষ কতকিছুই না করেন। ৭৪ বছর বয়সী জন ইভান্স মাথায় বিভিন্ন ভারী বস্তুর ভারসম্য রেখে বিশ্বরেকর্ড করেছেন। তবে একবার দুইবার নয় ৯৮টি বিশ্বরেকর্ড তার ঝুলিতে। ছুঁতে চান শততম রেকর্ডের মাইলফলক। এবার ৯৯ তম রেকর্ডের জন্য মাথায় তুলে নেবেন বিশাল এক গাড়ি।

ব্রিটিশ নাগরিক জন ইভান্সের বয়স এখন ৭৪ বছর। তার দক্ষতা মাথায় ভারসাম্য রাখায়। ইট-পাথরের মতো ছোট জিনিস থেকে শুরু করে আস্ত গাড়ি কিংবা ভারী চিমনিও মাথায় নিয়ে হাঁটতে পারেন তিনি। চিমনি ছাড়া আরও ভারী ভারী বস্তু সহজেই মাথায় বহন করতে পারেন তিনি। রাখতে পারেন ভারসাম্য।

jagonews24

বিশ্বরেকর্ড গড়া ইভান্সের কাছে যেন ডালভাত। ৯৮টি রেকর্ড এরই মধ্যে করে ফেলেছনে, এবার বিশ্বরেকর্ডে সেঞ্চুরি করাই তার একমাত্র লক্ষ্য। সামনেই তার ৭৫তম জন্মদিন। সেদিনকেই বেছে নিয়েছেন ৯৯তম রেকর্ডটি করার জন্য।

jagonews24

শারীরিক নানা প্রতিবন্ধকতা নিয়েই এই বিশ্বরেকর্ডগুলো নিজের ঝুলিতে ভরেছেন ইভান্স। তার একটা চোখ নষ্ট, ডায়াবেটিস, হাঁপানি ও গলায় সমস্যা নিয়েও ভারী জিনিস মাথায় তুলছেন অনায়াসে। সুস্থ থাকলে আর দুটি রেকর্ড গড়ে শততম রেকর্ড করতে চান ইভান্স।

জন ইভান্সের বয়স যখন ১৭-১৮ বছর, তখন একটি নির্মাণ সাইটে কাজ শুরু করতেন তিনি। সেখানে ইট মাথায় করে মই বেয়ে উপরে উঠতে হতো। শুরুতে কয়েকটি করে নিলেও পরে ২৪টি পর্যন্ত তুলতে পারতেন তিনি।

এক সময় হাত ছেড়ে দিয়েও হাঁটতে শুরু করলেন। তার এমন দক্ষতা দেখে সবার অনুরোধে একটি গাড়িও তুলে ফেলেন মাথায়। সেটা হয়ে যায় বিশ্বরেকর্ড।

jagonews24

তবে নিজের এই দক্ষতা শুধু গিনেস বুকেই সীমাবদ্ধ রাখেননি তিনি। অসহায়দের পাশে দাঁড়াতে গড়ে তুলেছেন একটি দাতব্য সংস্থাও। মাথায় ওজনের ভারসাম্য রাখার দক্ষতা দেখিয়ে দাতব্য সংস্থার জন্য সংগ্রহ করেছেন, ৩ লাখ ৩১ হাজার ডলারের বেশি। এজন্য তিনি বিভিন্ন সময় টিভি শো’তেও অংশ নিয়েছেন।

সূত্র: ইনসাইড এডিশন/ গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড

জনপ্রিয় সংবাদ

বান্দরবানকে স্মার্ট পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হবে: ট্যুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি আপেল মাহমুদ।

৭৪ বছর বয়সী জন ইভান্স মাথায় বিভিন্ন ভারী বস্তুর ভারসম্য রেখে বিশ্বরেকর্ড করেছেন।

৭৪ বছরে ৯৮টি বিশ্বরেকর্ড বৃদ্ধের

আপডেট সময় ০২:৫৩:০৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ এপ্রিল ২০২২

বিশ্বরেকর্ড করতে মানুষ কতকিছুই না করেন। ৭৪ বছর বয়সী জন ইভান্স মাথায় বিভিন্ন ভারী বস্তুর ভারসম্য রেখে বিশ্বরেকর্ড করেছেন। তবে একবার দুইবার নয় ৯৮টি বিশ্বরেকর্ড তার ঝুলিতে। ছুঁতে চান শততম রেকর্ডের মাইলফলক। এবার ৯৯ তম রেকর্ডের জন্য মাথায় তুলে নেবেন বিশাল এক গাড়ি।

ব্রিটিশ নাগরিক জন ইভান্সের বয়স এখন ৭৪ বছর। তার দক্ষতা মাথায় ভারসাম্য রাখায়। ইট-পাথরের মতো ছোট জিনিস থেকে শুরু করে আস্ত গাড়ি কিংবা ভারী চিমনিও মাথায় নিয়ে হাঁটতে পারেন তিনি। চিমনি ছাড়া আরও ভারী ভারী বস্তু সহজেই মাথায় বহন করতে পারেন তিনি। রাখতে পারেন ভারসাম্য।

jagonews24

বিশ্বরেকর্ড গড়া ইভান্সের কাছে যেন ডালভাত। ৯৮টি রেকর্ড এরই মধ্যে করে ফেলেছনে, এবার বিশ্বরেকর্ডে সেঞ্চুরি করাই তার একমাত্র লক্ষ্য। সামনেই তার ৭৫তম জন্মদিন। সেদিনকেই বেছে নিয়েছেন ৯৯তম রেকর্ডটি করার জন্য।

jagonews24

শারীরিক নানা প্রতিবন্ধকতা নিয়েই এই বিশ্বরেকর্ডগুলো নিজের ঝুলিতে ভরেছেন ইভান্স। তার একটা চোখ নষ্ট, ডায়াবেটিস, হাঁপানি ও গলায় সমস্যা নিয়েও ভারী জিনিস মাথায় তুলছেন অনায়াসে। সুস্থ থাকলে আর দুটি রেকর্ড গড়ে শততম রেকর্ড করতে চান ইভান্স।

জন ইভান্সের বয়স যখন ১৭-১৮ বছর, তখন একটি নির্মাণ সাইটে কাজ শুরু করতেন তিনি। সেখানে ইট মাথায় করে মই বেয়ে উপরে উঠতে হতো। শুরুতে কয়েকটি করে নিলেও পরে ২৪টি পর্যন্ত তুলতে পারতেন তিনি।

এক সময় হাত ছেড়ে দিয়েও হাঁটতে শুরু করলেন। তার এমন দক্ষতা দেখে সবার অনুরোধে একটি গাড়িও তুলে ফেলেন মাথায়। সেটা হয়ে যায় বিশ্বরেকর্ড।

jagonews24

তবে নিজের এই দক্ষতা শুধু গিনেস বুকেই সীমাবদ্ধ রাখেননি তিনি। অসহায়দের পাশে দাঁড়াতে গড়ে তুলেছেন একটি দাতব্য সংস্থাও। মাথায় ওজনের ভারসাম্য রাখার দক্ষতা দেখিয়ে দাতব্য সংস্থার জন্য সংগ্রহ করেছেন, ৩ লাখ ৩১ হাজার ডলারের বেশি। এজন্য তিনি বিভিন্ন সময় টিভি শো’তেও অংশ নিয়েছেন।

সূত্র: ইনসাইড এডিশন/ গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ড