ঢাকা ১১:৫০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি বাংলাদেশের অন্যতম নিদর্শন বাগেরহাটের ষাটগম্বুজ মসজিদ

বাগেরহাটের ষাটগম্বুজ মসজিদ দেখে মুগ্ধ বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতরা ।

ফাইল ছবি

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি বাংলাদেশের অন্যতম নিদর্শন বাগেরহাটের ষাটগম্বুজ মসজিদ ও সুন্দরবন দেখে অভিভূত হয়েছেন বিশ্বের বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত ও প্রতিনিধিরা।
মঙ্গলবার (২২ মার্চ) বিকেলে বাগেরহাটের ষাটগম্বুজে এলে জেলা প্রশাসক মো. আজিজুর রহমান রাষ্ট্রদূত ও আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের আয়োজনে মুজিব ফ্যামিলাইজেশন ট্যুরের অংশ হিসেবে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত ও প্রতিনিধিরা দুদিন ঘুরে দেখেছেন প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি  ষাটগম্বুজ মসজিদ।

ইন্দোনেশিয়া, ইরাক, ইতালি, থাইল্যান্ড, দক্ষিণ কোরিয়া, ফিলিপিন্স, নেপাল, পাকিস্তানসহ বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত ও দুটি আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিরা অংশ নেন। ভ্রমণ শেষে মঙ্গলবার বিকেলে দেশের প্রাকৃতিক ও ঐতিহাসিক স্থাপনা দেখে মুগ্ধ হয়েছেন বলে জানান বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী।

তিনি আরও বলেন, নিজ দেশের ঐতিহ্য সারা বিশ্বের কাছে তুলে ধরতে কাজ করা হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবেই এই ট্যুর। ঐতিহ্য সুরক্ষিত করতে সরকার কাজ করছে । কোনোভাবেই ঐতিহাসিক নিদর্শন নষ্ট হতে দেওয়া যাবে না।

বাগেরহাটের লোকজন অত্যন্ত সৌভাগ্যবান। বিশ্ব ঐতিহ্যের বড় দুটি স্থানই পড়েছে বাগেরহাটে। একটি সুন্দরবন, অন্যটি ষাটগম্বুজ মসজিদসহ খানজাহানের অন্যান্য স্থাপনা।

১৫টি দেশের রাষ্ট্রদূত এবং দুটি সংস্থার প্রতিনিধিরা বলেছেন, তারা তাদের দেশের পর্যটকদের বাংলাদেশ ভ্রমণের বিষয়ে উৎসাহী করবেন। তারা সবাই আমাদের দেশের এই প্রাকৃতিক ও ঐতিহাসিক স্থাপনা দেখে মুগ্ধ হয়েছেন।

বাগেরহাটের মোংলা দিয়ে সুন্দরবন ভ্রমণ শেষে বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রীর নেতৃত্বে প্রতিনিধিদলটি বাগেরহাটের ঐতিহাসিক ষাটগম্বুজ মসজিদ ও বাগেরহাট প্রত্নতত্ত্ব জাদুঘর ঘুরে দেখেন।

জনপ্রিয় সংবাদ

বান্দরবানকে স্মার্ট পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হবে: ট্যুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি আপেল মাহমুদ।

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি বাংলাদেশের অন্যতম নিদর্শন বাগেরহাটের ষাটগম্বুজ মসজিদ

বাগেরহাটের ষাটগম্বুজ মসজিদ দেখে মুগ্ধ বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূতরা ।

আপডেট সময় ০২:৪৭:৩৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৩ মার্চ ২০২২

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি বাংলাদেশের অন্যতম নিদর্শন বাগেরহাটের ষাটগম্বুজ মসজিদ ও সুন্দরবন দেখে অভিভূত হয়েছেন বিশ্বের বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত ও প্রতিনিধিরা।
মঙ্গলবার (২২ মার্চ) বিকেলে বাগেরহাটের ষাটগম্বুজে এলে জেলা প্রশাসক মো. আজিজুর রহমান রাষ্ট্রদূত ও আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের আয়োজনে মুজিব ফ্যামিলাইজেশন ট্যুরের অংশ হিসেবে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত ও প্রতিনিধিরা দুদিন ঘুরে দেখেছেন প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি  ষাটগম্বুজ মসজিদ।

ইন্দোনেশিয়া, ইরাক, ইতালি, থাইল্যান্ড, দক্ষিণ কোরিয়া, ফিলিপিন্স, নেপাল, পাকিস্তানসহ বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত ও দুটি আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিরা অংশ নেন। ভ্রমণ শেষে মঙ্গলবার বিকেলে দেশের প্রাকৃতিক ও ঐতিহাসিক স্থাপনা দেখে মুগ্ধ হয়েছেন বলে জানান বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী।

তিনি আরও বলেন, নিজ দেশের ঐতিহ্য সারা বিশ্বের কাছে তুলে ধরতে কাজ করা হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবেই এই ট্যুর। ঐতিহ্য সুরক্ষিত করতে সরকার কাজ করছে । কোনোভাবেই ঐতিহাসিক নিদর্শন নষ্ট হতে দেওয়া যাবে না।

বাগেরহাটের লোকজন অত্যন্ত সৌভাগ্যবান। বিশ্ব ঐতিহ্যের বড় দুটি স্থানই পড়েছে বাগেরহাটে। একটি সুন্দরবন, অন্যটি ষাটগম্বুজ মসজিদসহ খানজাহানের অন্যান্য স্থাপনা।

১৫টি দেশের রাষ্ট্রদূত এবং দুটি সংস্থার প্রতিনিধিরা বলেছেন, তারা তাদের দেশের পর্যটকদের বাংলাদেশ ভ্রমণের বিষয়ে উৎসাহী করবেন। তারা সবাই আমাদের দেশের এই প্রাকৃতিক ও ঐতিহাসিক স্থাপনা দেখে মুগ্ধ হয়েছেন।

বাগেরহাটের মোংলা দিয়ে সুন্দরবন ভ্রমণ শেষে বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রীর নেতৃত্বে প্রতিনিধিদলটি বাগেরহাটের ঐতিহাসিক ষাটগম্বুজ মসজিদ ও বাগেরহাট প্রত্নতত্ত্ব জাদুঘর ঘুরে দেখেন।