ঢাকা ০৫:০৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মাছ ধরতে গিয়ে শপিং ব্যাগে মিলল সদ্যভূমিষ্ঠ এক নবজাতক

  • অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট সময় ০৭:২১:৫৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৯ জুলাই ২০২৪
  • ১৬ বার পড়া হয়েছে

টাঙ্গাইলের বাসাইলে মাছ ধরতে গিয়ে সদ্যভূমিষ্ঠ এক নবজাতক উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার (৮ জুলাই) দিবাগত রাত ১২টার দিকে উপজেলার হাবলা ইউনিয়নের পশ্চিম পৌলী তালুকদার বাড়ি এলাকায় মসজিদের সামনে থেকে কাজী রবিন নামের এক ব্যক্তি ওই নবজাতক কন্যাসন্তানটি উদ্ধার করেন।

নবজাতকটি বর্তমানে উপজেলার হাবলা ইউনিয়নের পশ্চিম পৌলী এলাকার বাসিন্দা কাজী রবিন ও তার স্ত্রী মিম আক্তারের তত্ত্বাবধায়নে রয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, মাছ ধরতে গিয়ে পশ্চিম পৌলী তালুকদার বাড়ি এলাকায় একটি মসজিদের সামনে হঠাৎ করে কান্নার শব্দ পান রবিন।

এ সময় তিনি শপিং ব্যাগের ভেতরে ওই নবজাতকটি দেখতে পান। পরে তিনি স্থানীয়দের খবর দিয়ে তাদের উপস্থিতিতে নবজাতকটি উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে যান। 

স্থানীয় ইউপি সদস্য ফজলুল হক বলেন, মাছ ধরতে গিয়ে অটোরিকশা চালক রবিন ওই নবজাতকটি পান। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার র্কাযালয় ও সমাজসেবা কার্যালয়ে কথা বলে নবজাতকটিকে রবিন ও তার স্ত্রীর মাধ্যমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহরুখ খান বলেন, নবজাতকটিকে জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের জেলা কমিটির কাছে পাঠানো হবে। জেলা প্রশাসক মহোদয় নবজাতকটির ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিবেন।

এর আগে ৩ জুলাই সকালে একই উপজেলার কাশিল মধ্যপাড়া এলাকার প্রবাসী ছাত্তার মিয়ার বাড়ির গোসলখানা ও টয়লেটের পাশ থেকে সদ্যভূমিষ্ঠ এক নবজাতক পুত্রসন্তান উদ্ধার করা হয়।

ট্যাগস :
আপলোডকারীর তথ্য

Daily Naba Bani

মিডিয়া তালিকাভুক্ত জাতীয় দৈনিক নববাণী পত্রিকার জন্য সকল জেলা উপজেলায় সংবাদ কর্মী আবশ্যকঃ- আগ্রহীরা আজই আবেদন করুন। মেইল: 24nababani@gmail.com
জনপ্রিয় সংবাদ

বান্দরবানকে স্মার্ট পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হবে: ট্যুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি আপেল মাহমুদ।

মাছ ধরতে গিয়ে শপিং ব্যাগে মিলল সদ্যভূমিষ্ঠ এক নবজাতক

আপডেট সময় ০৭:২১:৫৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৯ জুলাই ২০২৪

টাঙ্গাইলের বাসাইলে মাছ ধরতে গিয়ে সদ্যভূমিষ্ঠ এক নবজাতক উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার (৮ জুলাই) দিবাগত রাত ১২টার দিকে উপজেলার হাবলা ইউনিয়নের পশ্চিম পৌলী তালুকদার বাড়ি এলাকায় মসজিদের সামনে থেকে কাজী রবিন নামের এক ব্যক্তি ওই নবজাতক কন্যাসন্তানটি উদ্ধার করেন।

নবজাতকটি বর্তমানে উপজেলার হাবলা ইউনিয়নের পশ্চিম পৌলী এলাকার বাসিন্দা কাজী রবিন ও তার স্ত্রী মিম আক্তারের তত্ত্বাবধায়নে রয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, মাছ ধরতে গিয়ে পশ্চিম পৌলী তালুকদার বাড়ি এলাকায় একটি মসজিদের সামনে হঠাৎ করে কান্নার শব্দ পান রবিন।

এ সময় তিনি শপিং ব্যাগের ভেতরে ওই নবজাতকটি দেখতে পান। পরে তিনি স্থানীয়দের খবর দিয়ে তাদের উপস্থিতিতে নবজাতকটি উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে যান। 

স্থানীয় ইউপি সদস্য ফজলুল হক বলেন, মাছ ধরতে গিয়ে অটোরিকশা চালক রবিন ওই নবজাতকটি পান। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার র্কাযালয় ও সমাজসেবা কার্যালয়ে কথা বলে নবজাতকটিকে রবিন ও তার স্ত্রীর মাধ্যমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহরুখ খান বলেন, নবজাতকটিকে জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের জেলা কমিটির কাছে পাঠানো হবে। জেলা প্রশাসক মহোদয় নবজাতকটির ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিবেন।

এর আগে ৩ জুলাই সকালে একই উপজেলার কাশিল মধ্যপাড়া এলাকার প্রবাসী ছাত্তার মিয়ার বাড়ির গোসলখানা ও টয়লেটের পাশ থেকে সদ্যভূমিষ্ঠ এক নবজাতক পুত্রসন্তান উদ্ধার করা হয়।