ঢাকা ১১:১৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজশাহীর পবা- মোহনপুরের প্রতীক এখন -আসাদ”

পবা- মোহনপুরের প্রতীক এখন -আসাদ"

আসছে  নির্বাচনী  আমেজ তারই ধারাবাহিকতায় (পবা-মোহনপুর)-৩ আসনের আ’লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী ও রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ তার প্রতীক হলো নৌকা ।সাংবাদিকদের একান্ত সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের হাওয়া সমগ্র বাংলায় লেগেছে। উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট গ্রহণ প্রক্রিয়া ইতোমধ্যে সম্পূর্ণ হয়েছে। সাধারণ জনগণ স্বতঃস্ফূর্তভাবে এতে সাড়া দিয়েছে। গতকাল প্রতীক বরাদ্দ পেয়ে প্রার্থীরা নির্বাচনীয় এলাকায় ভোট প্রার্থনায় মাঠে নেমেছে। চারিদিকে চলছে নির্বাচনী আমেজ। এবারে নির্বাচন হবে একটি অংশগ্রহণ মূলক নির্বাচন। রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) বাসীকে আহব্বান করবো আপনাদের ভাগ্য বদলে, আপনাদের পছন্দের মানুষকে ভোট দিতে, ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত করুন।
১৯ ডিসেম্বর (মঙ্গলবার) সকাল ১০:০০ টায় নগরীর লক্ষিপুরে তাঁর রাজনৈতিক কার্যালয়ে একান্ত সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন তিনি।
এসময় তিনি আরো বলেন, নৌকার পালে হাওয়া লেগেছে। প্রতীক বরাদ্দের পর থেকে নৌকা চলছে আর এ নৌকার যাত্রী হবে গণতন্ত্রপ্রেমী মানুষ। দেশের কৃষক, শ্রমিক, সাধারণ জনগণ হলো নৌকার যাত্রী আর এ নৌকার মাঝি হলেন শেখ হাসিনা। তিনি আমাদের ভাগ্য পরিবর্তন করতে পারেন। তিনি আমাদের আশা আকাঙ্ক্ষার প্রতীক। বাংলাদেশ বদলে যাওয়ার মহানায়ক।
নিশ্চিত উন্নয়নের স্বার্থে নৌকার পক্ষে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, দেশের স্বার্থে দেশের মানুষের স্বার্থে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিকল্প নেই। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে চাইলে নৌকার বিকল্প নেই।
প্রতিটি ঘরে প্রতিটি ভোটারের কাছে এই বার্তা পৌঁছে দিতে হবে। আমি বিশ্বাস করি, আগামী ৭ জানুয়ারী সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে নৌকার পক্ষে সকলে ভোট দিবেন। বিপুল ভোটে নৌকার প্রার্থীকে জয়যুক্ত করে প্রধানমন্ত্রীকে এ আসনটি উপহার দেবেন আপনারা।
তিনি আরো বলেন, জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তিনি বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রগতির মহানায়ক। তিনি বাংলাদেশকে বদলে দিয়েছেন। তিনি আমাদের বিশ্ব দরবারে মর্যাদার আসনে বসিয়েছেন। তিনি এ দেশের ১৬ কোটি মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তনের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। সুশাসন প্রতিষ্ঠা করার জন্য দেশরত্ন লড়াই সংগ্রাম করে যাচ্ছেন। আমাদের সবসময় তার পাশে থাকতে হবে। তার পাশে থেকে সকল অপশক্তিকে আমাদের মোকাবিলা করতে হবে
তিনি বলেন, বিএনপি জামায়াত হলো দেশবিরোধী অপশক্তি। এরা দেশকে ভালোবাসে না। এরা দেশের ১৬ কোটি মানুষকে কখনও ভালোবাসতে পারেনি। তাদের মধ্যে বিন্দুমাত্র দেশ প্রেম নেই। এরা দুর্নীতিবাজ ও সন্ত্রাসী। এরা দেশের মানুষ শান্তিতে থাকুক তা মেনে নিতে পারে না। এরা সব সময় দেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব ও গণতন্ত্রের বিপক্ষে অবস্থান নেয়। দেশের উন্নয়ন, অগ্রগতির মাঝে একমাত্র বাধা হলো এ বিএনপি-জামায়াত। দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করতে সব চেষ্টা তারা করে। এরা সব সময় নিজের ভাগ্য পরিবর্তনের চেষ্টায় থাকে।
রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনটি কৃষক প্রধান এলাকা। এখানে কিছু এলাকায় মাদকের সমস্যা আছে। উন্নত কৃষি ব্যবস্থাসহ কৃষি পন্য সমগ্র দেশসহ বিদেশে রপ্তানি ব্যবস্থা করবো। মাদক নির্মূলে কাজ করবো। সরকারের আগামীর ভিশন স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যায়ে কাজ করবো বলে উল্লেখ করেন তিনি। পবা-মোহনপুর বাসীর উন্নত জীবনযাত্রা অগ্রগতিতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো। নারী উদ্দোক্তাসহ তরূণদের প্রতি থাকবে বিশেষ নজর। পবা-মোহনপুর হবে রোল মডেল উপজেলা। কোনো প্রকার অপশক্তিকে ভয় না পেয়ে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোট প্রদানের আহ্বানও জানান তিনি।
আপলোডকারীর তথ্য

Daily Naba Bani

মিডিয়া তালিকাভুক্ত জাতীয় দৈনিক নববাণী পত্রিকার জন্য সকল জেলা উপজেলায় সংবাদ কর্মী আবশ্যকঃ- আগ্রহীরা আজই আবেদন করুন। মেইল: [email protected]
জনপ্রিয় সংবাদ

বান্দরবানকে স্মার্ট পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হবে: ট্যুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি আপেল মাহমুদ।

রাজশাহীর পবা- মোহনপুরের প্রতীক এখন -আসাদ”

আপডেট সময় ০৬:৩২:২৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০২৩
আসছে  নির্বাচনী  আমেজ তারই ধারাবাহিকতায় (পবা-মোহনপুর)-৩ আসনের আ’লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী ও রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ তার প্রতীক হলো নৌকা ।সাংবাদিকদের একান্ত সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের হাওয়া সমগ্র বাংলায় লেগেছে। উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট গ্রহণ প্রক্রিয়া ইতোমধ্যে সম্পূর্ণ হয়েছে। সাধারণ জনগণ স্বতঃস্ফূর্তভাবে এতে সাড়া দিয়েছে। গতকাল প্রতীক বরাদ্দ পেয়ে প্রার্থীরা নির্বাচনীয় এলাকায় ভোট প্রার্থনায় মাঠে নেমেছে। চারিদিকে চলছে নির্বাচনী আমেজ। এবারে নির্বাচন হবে একটি অংশগ্রহণ মূলক নির্বাচন। রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) বাসীকে আহব্বান করবো আপনাদের ভাগ্য বদলে, আপনাদের পছন্দের মানুষকে ভোট দিতে, ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত করুন।
১৯ ডিসেম্বর (মঙ্গলবার) সকাল ১০:০০ টায় নগরীর লক্ষিপুরে তাঁর রাজনৈতিক কার্যালয়ে একান্ত সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন তিনি।
এসময় তিনি আরো বলেন, নৌকার পালে হাওয়া লেগেছে। প্রতীক বরাদ্দের পর থেকে নৌকা চলছে আর এ নৌকার যাত্রী হবে গণতন্ত্রপ্রেমী মানুষ। দেশের কৃষক, শ্রমিক, সাধারণ জনগণ হলো নৌকার যাত্রী আর এ নৌকার মাঝি হলেন শেখ হাসিনা। তিনি আমাদের ভাগ্য পরিবর্তন করতে পারেন। তিনি আমাদের আশা আকাঙ্ক্ষার প্রতীক। বাংলাদেশ বদলে যাওয়ার মহানায়ক।
নিশ্চিত উন্নয়নের স্বার্থে নৌকার পক্ষে ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, দেশের স্বার্থে দেশের মানুষের স্বার্থে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিকল্প নেই। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে চাইলে নৌকার বিকল্প নেই।
প্রতিটি ঘরে প্রতিটি ভোটারের কাছে এই বার্তা পৌঁছে দিতে হবে। আমি বিশ্বাস করি, আগামী ৭ জানুয়ারী সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে নৌকার পক্ষে সকলে ভোট দিবেন। বিপুল ভোটে নৌকার প্রার্থীকে জয়যুক্ত করে প্রধানমন্ত্রীকে এ আসনটি উপহার দেবেন আপনারা।
তিনি আরো বলেন, জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তিনি বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রগতির মহানায়ক। তিনি বাংলাদেশকে বদলে দিয়েছেন। তিনি আমাদের বিশ্ব দরবারে মর্যাদার আসনে বসিয়েছেন। তিনি এ দেশের ১৬ কোটি মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তনের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। সুশাসন প্রতিষ্ঠা করার জন্য দেশরত্ন লড়াই সংগ্রাম করে যাচ্ছেন। আমাদের সবসময় তার পাশে থাকতে হবে। তার পাশে থেকে সকল অপশক্তিকে আমাদের মোকাবিলা করতে হবে
তিনি বলেন, বিএনপি জামায়াত হলো দেশবিরোধী অপশক্তি। এরা দেশকে ভালোবাসে না। এরা দেশের ১৬ কোটি মানুষকে কখনও ভালোবাসতে পারেনি। তাদের মধ্যে বিন্দুমাত্র দেশ প্রেম নেই। এরা দুর্নীতিবাজ ও সন্ত্রাসী। এরা দেশের মানুষ শান্তিতে থাকুক তা মেনে নিতে পারে না। এরা সব সময় দেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্ব ও গণতন্ত্রের বিপক্ষে অবস্থান নেয়। দেশের উন্নয়ন, অগ্রগতির মাঝে একমাত্র বাধা হলো এ বিএনপি-জামায়াত। দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করতে সব চেষ্টা তারা করে। এরা সব সময় নিজের ভাগ্য পরিবর্তনের চেষ্টায় থাকে।
রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনটি কৃষক প্রধান এলাকা। এখানে কিছু এলাকায় মাদকের সমস্যা আছে। উন্নত কৃষি ব্যবস্থাসহ কৃষি পন্য সমগ্র দেশসহ বিদেশে রপ্তানি ব্যবস্থা করবো। মাদক নির্মূলে কাজ করবো। সরকারের আগামীর ভিশন স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যায়ে কাজ করবো বলে উল্লেখ করেন তিনি। পবা-মোহনপুর বাসীর উন্নত জীবনযাত্রা অগ্রগতিতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো। নারী উদ্দোক্তাসহ তরূণদের প্রতি থাকবে বিশেষ নজর। পবা-মোহনপুর হবে রোল মডেল উপজেলা। কোনো প্রকার অপশক্তিকে ভয় না পেয়ে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোট প্রদানের আহ্বানও জানান তিনি।