ঢাকা ০৫:১৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজশাহী ও নাটোরের বিভিন্ন ঐতিহাসিক স্থাপনা পরিদর্শনে কলকাতা থেকে আগত অতিথিরা

ফাইল ছবি।

রাজশাহী ও নাটোরের বিভিন্ন ঐতিহাসিক স্থাপনা পরিদর্শন করেছেন ভারতের কলকাতা থেকে আগত অতিথিবৃন্দ। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের আমন্ত্রণে দুই দিনের সফরে এসে দ্বিতীয় দিন মঙ্গলবার দিনব্যাপী বিভিন্ন ঐতিহাসিক স্থাপনা পরিদর্শন করেন কলকাতা প্রেসক্লাবের সভাপতি হাশিস সুর, রবীন্দ্র ভারতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যাস কমিউনিকেশন এন্ড ভিডিওগ্রাফি বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. শ্রী দেবজ্যোতি চন্দ, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের জার্নালিজম ও ম্যাস কমিউনিকেশন বিভাগের প্রফেসর ড. সান্তুন চট্রোপাধ্যায়, বাংলা ওয়ার্ল্ডওয়াইডের আহবায়ক সৌম্যব্রত দাস ও কলকাতা বাংলা ওয়ার্ল্ডওয়াইডের সদস্য বিদ্যুৎ মজুমদার।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বধ্যভূমি স্মারকস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন কলকাতার অতিথিরা। এরপর শহীদ অধ্যাপক শামসুজ্জোহার সমাধীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন তাঁরা। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় করেন।

এ সময় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর গোলাম সাব্বির সাত্তার, উপ-উপাচার্য প্রফেসর সুলতান-উল ইসলাম, উপ-উপাচার্য প্রফেসর হুমায়ুন কবির, জনসংযোগ প্রশাসক প্রফেসর প্রদীপ কুমার পা-ে প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া শহীদ স্মৃতি সংগ্রহশালা ও আই-ই-আর পরিদর্শন করেন।

কলকাতা থেকে আগত অতিথিদের নিয়ে রাবির গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে অতিথিদের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. মুসতাক আহমেদ। সঞ্চালনা করেন গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক মোজাম্মেল হোসেন বকুল। উপস্থিত ছিলেন গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ড. দুলাল চন্দ্র বিশ্বাস, অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পা-ে, অধ্যাপক মশিউর রহমান, অধ্যাপক এবিএম সাইফুল ইসলাম, সহযোগী অধ্যাপক শাতিল সিরাজ, সহকারী অধ্যাপক সোমা দেব প্রমুখ।

এদিকে তাহেরপুরের ঐতিহাসিক দূর্গামন্দির পরিদর্শণ করেন অতিথিরা। এ সময় তাহেরপুর পৌরসভার মেয়র আবুল কালাম আজাদ উপস্থিত ছিলেন। পরে নাটোর রাজবাড়ী ও উত্তরা গণভবন ঘুরে দেখেন অতিথিরা।

পরিদর্শনকালে রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান প্রফেসর তানবিরুল আলম, রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মোকবুল হোসেন, রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল আওয়াল খান চৌধুরী জ্যেতি, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোস্তাফিজ মিশু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।#

আপলোডকারীর তথ্য

Daily Naba Bani

মিডিয়া তালিকাভুক্ত জাতীয় দৈনিক নববাণী পত্রিকার জন্য সকল জেলা উপজেলায় সংবাদ কর্মী আবশ্যকঃ- আগ্রহীরা আজই আবেদন করুন। মেইল: 24nababani@gmail.com
জনপ্রিয় সংবাদ

বান্দরবানকে স্মার্ট পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা হবে: ট্যুরিস্ট পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি আপেল মাহমুদ।

রাজশাহী ও নাটোরের বিভিন্ন ঐতিহাসিক স্থাপনা পরিদর্শনে কলকাতা থেকে আগত অতিথিরা

আপডেট সময় ০৮:৫৩:১৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মার্চ ২০২৩

রাজশাহী ও নাটোরের বিভিন্ন ঐতিহাসিক স্থাপনা পরিদর্শন করেছেন ভারতের কলকাতা থেকে আগত অতিথিবৃন্দ। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটনের আমন্ত্রণে দুই দিনের সফরে এসে দ্বিতীয় দিন মঙ্গলবার দিনব্যাপী বিভিন্ন ঐতিহাসিক স্থাপনা পরিদর্শন করেন কলকাতা প্রেসক্লাবের সভাপতি হাশিস সুর, রবীন্দ্র ভারতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যাস কমিউনিকেশন এন্ড ভিডিওগ্রাফি বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. শ্রী দেবজ্যোতি চন্দ, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের জার্নালিজম ও ম্যাস কমিউনিকেশন বিভাগের প্রফেসর ড. সান্তুন চট্রোপাধ্যায়, বাংলা ওয়ার্ল্ডওয়াইডের আহবায়ক সৌম্যব্রত দাস ও কলকাতা বাংলা ওয়ার্ল্ডওয়াইডের সদস্য বিদ্যুৎ মজুমদার।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বধ্যভূমি স্মারকস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন কলকাতার অতিথিরা। এরপর শহীদ অধ্যাপক শামসুজ্জোহার সমাধীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন তাঁরা। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সাক্ষাৎ ও মতবিনিময় করেন।

এ সময় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর গোলাম সাব্বির সাত্তার, উপ-উপাচার্য প্রফেসর সুলতান-উল ইসলাম, উপ-উপাচার্য প্রফেসর হুমায়ুন কবির, জনসংযোগ প্রশাসক প্রফেসর প্রদীপ কুমার পা-ে প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া শহীদ স্মৃতি সংগ্রহশালা ও আই-ই-আর পরিদর্শন করেন।

কলকাতা থেকে আগত অতিথিদের নিয়ে রাবির গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে অতিথিদের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. মুসতাক আহমেদ। সঞ্চালনা করেন গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক মোজাম্মেল হোসেন বকুল। উপস্থিত ছিলেন গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ড. দুলাল চন্দ্র বিশ্বাস, অধ্যাপক প্রদীপ কুমার পা-ে, অধ্যাপক মশিউর রহমান, অধ্যাপক এবিএম সাইফুল ইসলাম, সহযোগী অধ্যাপক শাতিল সিরাজ, সহকারী অধ্যাপক সোমা দেব প্রমুখ।

এদিকে তাহেরপুরের ঐতিহাসিক দূর্গামন্দির পরিদর্শণ করেন অতিথিরা। এ সময় তাহেরপুর পৌরসভার মেয়র আবুল কালাম আজাদ উপস্থিত ছিলেন। পরে নাটোর রাজবাড়ী ও উত্তরা গণভবন ঘুরে দেখেন অতিথিরা।

পরিদর্শনকালে রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান প্রফেসর তানবিরুল আলম, রাজশাহী শিক্ষাবোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মোকবুল হোসেন, রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল আওয়াল খান চৌধুরী জ্যেতি, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোস্তাফিজ মিশু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।#